রাজনীতি

রাজনৈতিক কর্মসূচিতে জনগণের ভোগান্তি হলে নিষেধাজ্ঞা ডিএমপি কমিশনার

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেছেন, রাজনৈতিক কর্মসূচিতে জনগণের ভোগান্তি হলে বাধ্য হয়ে এসব কর্মসূচির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে হতে পারে।

বুধবার (২৬ জুলাই) রাজধানীর হোসেনি দালান ইমামবাড়ায় পবিত্র আশুরা উদযাপন ও তাজিয়া মিছিল উপলক্ষ্যে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমরা আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ ৯টি দলের আবেদন পেয়েছি তাদের সমাবেশ করার জন্য। আমরা পর্যালোচনা করে কয়েকটি পার্টিকে অনুমতি দেব। যারা অনুমতি পাবে, তাদের রাজনৈতিক সমাবেশ করা গণতান্ত্রিক অধিকার। কিন্তু জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ঢাকা মহানগর পুলিশের দায়িত্ব এবং কর্তব্য।

রাজনৈতিক দলগুলোর উদ্দেশে এসময় তিনি বলেন, কর্ম দিবসে বিশাল বিশাল জনসভা করে লাখ লাখ লোককে রাস্তায় আটকে রাখার মতো বিষয়গুলো বিবেচনা করতে হবে। তারা যেন ভবিষ্যতে কর্ম দিবসে সমাবেশ না দিয়ে বন্ধের দিনগুলোতে কর্মসূচি গ্রহণ করেন। আর যারা সমাবেশে আসবেন, তারা যেন লাঠিসোঁটা বা ব্যাগ না নিয়ে আসেন। আমি সব রাজনৈতিক দলকে বলব আপনারা জনগণকে কষ্ট না দিয়ে সমাবেশ করেন। হয়তো ভবিষ্যতে এমনসময় আসবে, জনগণ অতিষ্ঠ হয়ে গেলে আমাদের বাধ্য হয়ে এসব কর্মসূচির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে হতে পারে।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, রাজনৈতিক কর্মসূচিতে জনগণের ভোগান্তি হলে আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করতে হবে। এতে আমাদের অতিরিক্ত জনবল ও অর্থ ব্যয় হবে। এছাড়া, রাজনৈতিক কর্মসূচিতে জনগণের ভোগান্তি হলে তাদের আস্থা কমে যাবে। এতে গণতন্ত্রের অগ্রগতি ব্যাহত হবে।

তিনি বলেন, আমরা রাজনৈতিক দলগুলোকে আহ্বান করছি, তারা যেন জনগণের ভোগান্তি না করে রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করেন।

আরও পড়ুনঃ  সাঈদীর গায়েবানা জানাজার অনুমতি দেওয়া হবে না : ডিএমপি কমিশনার
Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *