ঢাকাবাংলাদেশ

প্রাণ বাঁচাতে কাচ্চি ভাইয়ের স্টোর রুমে আশ্রয়, সেখানেই মিলেছে বেশি লাশ

রাজধানীর বেইলি রোডে একটি বহুতল বাণিজ্যিক ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নারী-শিশুসহ মোট ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস বলছে, বেইলি রোডে আগুন নিয়ন্ত্রণের পর বেশিরভাগ লাশ ভবনের দ্বিতীয় তলার কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টের একটি স্টোর রুম থেকে উদ্ধার করা হয়।

দেখে বোঝা যাচ্ছে, তারা বাঁচার জন্য ওই স্টোর রুমে আশ্রয় নিয়েছিল। পরে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যায়।

শনিবার ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরের মিডিয়া সেলের কর্মকর্তা শাজাহান সিকদার এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, একে একে ১৩ ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণের পরে ভবনের ভেতরে প্রবেশ করা হয়।

ভবনের দ্বিতীয় তলায় কাচ্চি ভাইয়ের রেস্টুরেন্টের ভেতরে একটি স্টোর রুম ছিল। যেখানে হোটেলের কিছু মালামাল রাখা হতো। সে স্টোর রুম থেকে বেশিরভাগ লাশ উদ্ধার করা হয়। মনে হচ্ছে মানুষগুলো আগুন থেকে বাঁচার জন্য ওই স্টোর রুমে প্রবেশ করেছিল। আগুনে সে স্টোর রুমের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। স্টোর রুম থেকে উদ্ধার করা সব নিথর দেহে কোনও দগ্ধ ছিল না।

তিনি আরও বলেন, বেইলি রোডে ওই ভবনটি বেজমেন্টসহ ৮তলা। পুরোটাই কমার্শিয়াল। এর ছাদে একটি অফিস ও মসজিদ ছিল। আগুন লাগার পরপরই অনেকে সিঁড়ি দিয়ে নিচে নামতে না পারায় ছাদে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছিল। তাদের উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস। এছাড়া ভবনের তৃতীয় ও চতুর্থ তলায় সিঁড়ির থেকে বেশ কয়েকজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। মনে হয় সে মানুষগুলো নামতে গিয়ে মারা যায়। দু’জনের পোড়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে সিঁড়িতে থেকেই।

গত বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে বেইলি রোডে ওই ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সেখানে ১৩ ইউনিট কাজ করে রাত ১১টা ৫০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় ফায়ার সার্ভিস।

রেনেসাঁ টাইমস/সিয়াম

আরও পড়ুনঃ  বিদেশ যেতে হলে খালেদা জিয়াকে আবার জেলে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *