বাংলাদেশ

বাস থেকে নামিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৩

ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ফরিদপুরের ভাঙ্গাগামী একটি বাসের যাত্রী ১৩ বছরের এক মাদ্রাসাছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণের ঘটনায় ওই বাসের কন্ডাক্টর, হেলপার ও এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে সোমবার (৩১ জুলাই) বিকেলে ভাঙ্গা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, প্রচেষ্টা পরিবহনের কন্ডাক্টর আসিফ সরদার (২২), হেলপার রাকিব মাতুব্বর (২৪) ও তার মা লিলি বেগম (৫০)।

ভুক্তভোগী মেয়েটির দুলাভাই জানান, মেয়েটি ঢাকার একটি মাদ্রাসায় পড়ে। গত রোববার (৩০ জুলাই) বিকেলে তাকে বাসে তোলে দেওয়া হয়। মেয়েটির বাবা বাসস্ট্যান্ডে অপেক্ষা করছিলেন। মোবাইলে ফোন দিলে বন্ধ পান তিনি। খোজাখুঁজি করে না পেয়ে রাতে পুলিশকে জানানো হয়।

ভাঙ্গা থানার ডিউটি অফিসার এসআই জুয়েল জানান, রাত আনুমানিক ৩টার দিকে এ ব্যাপারে একটি মৌখিক অভিযোগ পেয়ে পরিবারের লোকজনকে সঙ্গে নিয়ে পুলিশ অভিযানে নামে। এরপর সোমবার সকালে ঐ বাসের সুপারভাইজার আসিফকে আটক করার পর, তার দেওয়া তথ্যমতে হেলপার রাকিবের বাসা থেকে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, ভাঙ্গায় পৌঁছার পর মেয়েটিকে বাস থেকে না নামিয়ে নিরাপদে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে কিছু দূর সামনে নিয়ে নামিয়ে হেলপার রাকিবুলের বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়।

অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে এ ঘটনায় ভাঙ্গা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই ছাত্রীকে মেডিকেল পরীক্ষা ও উন্নত চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠনো হয়েছে।

ভাঙ্গা থানার ওসি জিয়ারুল ইসলাম বলেন, ঘটনার সঙ্গে আরও কেউ জড়িত রয়েছে কি-না তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ  তরুণ ওয়ায়েজ মাওলানা উবায়দুর রহমান হুজাইফির বাবা ইন্তেকাল করেছেন
Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *