বাংলাদেশ

সপ্তাহে চাইর দিন দুপুরের খাওনটা এখানে পাই

Street children leedo একটি সংগঠন, যার অঙ্গ সংগঠন হিসেবে School under the sky (SUS) এর আয়োজনে সপ্তাহে চার দিন এক বেলা করে পথশিশুদের খাবারের ব্যবস্থা করেন থাকেন।

Picture from LEEDO’S Facebook
এদের লক্ষ্য হলো প্রতিটি শিশু একটি নিরাপদ ও প্রেমময় সুন্দর পরিবেশে বসবাস করার উপযুক্ত । দরিদ্রতম দেশগুলোতে সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ দেশে বেশিরভাগ শিশুদের মৌলিক সুযোগ – সুবিধা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা একটি চ্যালেঞ্জ।

এই সংগঠনের একজন সমাজকর্মী তাদের কাজের বিষয়ে আমাদের বলেন:-
” প্রতিদিন আমাদের সমাজকর্মীরা ও প্রতিনিধিরা পথশিশুদের মৌলিক অধিকার, সুযোগ – সুবিধা ও প্রয়োজন পূরণ করতে তাদের সন্ধ্যানে প্রতিনিয়ত পথের অলি গলিতে বেড়োচ্ছেন । আমাদের ট্রানজিশনাল শেল্টার শিশুটির কোন বাড়ি না থাকার কারণ চিহ্নিত করে এবং সম্ভাব্য পরিবারের সদস্যদের সনাক্ত করার চেষ্টা করেন। যেসকল শিশুদের পারিবারিক পুনর্মিলনের সুযোগ না হয়, সে সকল শিশুদের জন্য বিকল্প করণীয় হিসেবে আমাদের পিস হোম একটি নতুন প্রেমময় পারিবারিক পরিবেশ প্রদান করে এবং শিশুদের একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যত প্রদান করে।”

Picture from LEEDO’S Facebook
প্রতিষ্ঠাএবং পরিচালনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “স্থানীয় শিক্ষা ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন সংস্থা (LEEDO) হল একটি অলাভজনক, স্বেচ্ছাসেবী-ভিত্তিক উন্নয়ন সংস্থা। এই সংগঠনটি ২০০০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।  সংগঠনটি শিক্ষিত সামাজিক ও মানবাধিকার কর্মী এবং শিক্ষাবিদদের একটি গ্রুপ দ্বারা শুরু হয়েছিল। সমাজে সুবিধা বঞ্চিত ক্রমবর্ধমান দুর্বল পথশিশুদের চাহিদা পূরণ করতে এবং চরমভাবে বসবাস করতে বাধ্য করা শিশুদের সম্ভাবনাময় জীবনের উন্নত করার লক্ষ্যেই প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।
Picture from LEEDO’S Facebook
তিনি আরো বলেন আমাদের ভিশন হচ্ছে, “একটি সফল দেশ তার মধ্যে সফল সত্ত্বা দ্বারা নির্মিত হয় এবং সফল সত্ত্বাগুলি সফল ব্যক্তিদের উপর নির্ভর করে, যারা শেষ পর্যন্ত বিকাশ লাভ করে এবং সফল হয় এমন শিশুদের থেকে জন্ম নেয়। সুতরাং, আমরা যদি আমাদের জাতিকে সমৃদ্ধ করতে চাই এবং বিশ্বের একটি উন্নত দেশ হিসাবে আমাদের অবস্থান নিশ্চিত করতে চাই তবে আমাদের অবশ্যই আমাদের শিশুদের প্রতি মনোযোগ দিতে হবে। আমাদের উচ্চাভিলাষী যাত্রা শুরু করতে হবে সক্রিয়ভাবে আমাদের সন্তানদের বিকাশ ও সুস্থতার জন্য।”
Picture from LEEDO’S Facebook
এগিয়ে আসুন এমন উন্নয়ন মুলক প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে এবং সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে।

আরও পড়ুনঃ  বিক্রি হওয়া সন্তান উদ্ধার, মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিলো পুলিশ

আহমেদ হাবিব
রেনেসাঁ টাইমস

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *