আন্তর্জাতিক

‘আমি দুঃখিত’ বলে বিচারপতির পদত্যাগ হাইকোর্ট থেকে

ভারতের নাগপুরে বিচারকার্য চলাকালীন ‘আমি দুঃখিত’ বলে বোম্বে হাইকোর্টের বিচারপতি রোহিত দেও দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন। পদত্যাগের পরপরই তার টেবিল থেকে সমস্ত বিচারিক কগজপত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

শনিবার ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়। এতে বলা হয়, গতকাল শুক্রবার নাগপুরে বিচারক রোহিত দেও আদালত কক্ষে পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, উপস্থিত এক আইনজীবী বলেন, তিনি আত্মসম্মানের সাথে আপস করতে পারবেন না বলেও এই সময় জানান।

রোহিত দেও বলেন, আদালতে যারা উপস্থিত আছেন, আমি আপনাদের প্রত্যেকের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। আমি আপনাদের তিরস্কার করেছি, কারণ আমি আপনাদের উন্নতি করতে চাই। আমি আপনাদের কাউকে আঘাত করতে চাই না। কারণ আপনারা সবাই আমার পরিবারের মতো এবং আমি দুঃখিত।

তিনি বলেন, আপনাদের জানিয়ে রাখি, আমি আমার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি। আমি আমার আত্মসম্মানের বিরুদ্ধে কাজ করতে পারি না। পরে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় বিচারক বলেন , ‘আমি ব্যক্তিগত কারণে পদত্যাগ করেছি। এছাড়া ভারতের রাষ্ট্রপতির কাছেও আমার পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছি।’

বিচারপতি দেও ২০১৭ সালের জুন মাসে বোম্বে হাইকোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত হন। ডিসেম্বর ২০২৫-এ তার অবসর নেওয়ার কথা ছিল। এর আগে তিনি ২০১৬ সালে মহারাষ্ট্রের অ্যাডভোকেট জেনারেল ছিলেন।

আরও পড়ুনঃ  সীমান্তে বিএসএফের গুলি: আশার আলো কবে দেখবে বাংলাদেশীরা?
Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *